Biobd Logo

Biography Bangladesh

তিনি সাদা মনের উদার মানুষ

এমন পৃথিবীতে আসে ক্ষণে ক্ষণে, অধ্যক্ষ প্রফেসর মুজিবর রহমান। তিনি সাদা মনের উদার, সৎসাহসী, ন্যায়পরায়ন মানুষ ছিলেন। বৃহত্তর ময়মনসিংহ’এর একজন প্রগতিশীল স্বনামধন্য শিক্ষাবিদ ছিলেন। শিক্ষক হিসেবে সকল রাজনৈতিক দলের ব্যক্তিবর্গ, সামাজিক সংগঠক, ধর্ম, বর্ণ নির্বিশেষে বৃহত্তর ময়মনসিংহের পরিচিত মানুষের শ্রদ্ধার পাত্র ছিলেন।

তিনি একজন বিবেকবান মানুষ ছিলেন। শিক্ষকতার পাশাপাশি আর্তমানবতার জন্য বিভিন্ন সমাজসেবামূলক কাজে জড়িত থাকতেন। পাশাপাশি সে সময়ে সন্ধানী বিজ্ঞান চক্রের অন্যতম উদ্যোক্তা ছিলেন। উনার নিজ হাতে গড়া অসংখ্য ছাত্র-ছাত্রী দেশে বিদেশে আছেন।

ছাত্রজীবনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইকবাল হল থেকে বরিশালের সগীর সাহেবের সাথে নেতৃত্ব দিতেন। একসময় বাংলাদেশ পদার্থ বিজ্ঞান সমিতির নির্বাচন হয়। সেই নির্বাচনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বামী ডঃ ওয়াজেদ মিয়া সভাপতি আর মুজিবর রহমান সাধারণ সম্পাদক প্যানেল নির্বাচিত হয় । একজন অসাম্প্রদায়িক বাক্তিত্ত্ব ও মুক্তিযুদ্ধে তার ভুমিকা ছাত্ররা গর্বের সঙ্গে স্মরণ করেন।

১৯৭১ সালে নেত্রকোনা কলেজে শিক্ষক থাকাকালীন অবস্থায় বি.এন.সি.সি. র দায়িত্বে ছিলেন। তৎকালীন সময় যে অসাধারণ সাহসিকতার পরিচয় দিয়েছিলেন, তা সে সময়ের মুক্তিযোদ্ধা ছাত্ররা বলে থাকেন।

আনন্দ মোহন শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক হিসেবে তিনি দীর্ঘদিন দায়িত্বে ছিলেন। গরীব অথচ মেধাবী এমন ছাত্রীদের সহায়তায় নিয়োজিত ছিলেন। খেলাধুলায় তার অনেক অবদান ছিল।

ময়মনসিংহ জেলা ক্রীড়া সংস্থায় দায়িত্ব পালন করেছিলেন। তাছাড়া আনন্দ মোহন কলেজের ক্রীড়া কমিটির প্রধান হিসেবে দীর্ঘদিন দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৯১ সালের পরে নীতির প্রশ্নে আপোষহীন ও ভিন্ন মতের কারণে তাকে সাতবার বদলি করা হয়। এছাড়া ওএসডি করা হয় কয়েকবার। ময়মনসিংহ মুমিনুন্নেসা সরকারি কলেজ হতে একই কারণে তাকে বদলি করা হয়।

১৯৯৬ সালে নেত্রকোনা সরকারি বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের অধ্যক্ষ হিসেবে যোগদান করেন। সেখানে অনার্স, মাস্টার্স কোর্স তিনিই চালু করেছিলেন। চাকরি থেকে অবসর গ্রহণের পর নেত্রকোনা বঙ্গবন্ধু কলেজের প্রতিষ্ঠাতা অধ্যক্ষ হিসেবে নিযুক্ত হন। অন্যান্য শিক্ষাবিদদের একত্রিত করে ময়মনসিংহ অস্থায়ী রাষ্ট্রপতি সৈয়দ নজরুল ইসলাম কলেজ প্রতিষ্ঠায় মনোনিবেশ করেন। জীবন মৃত্যুর সন্ধিক্ষন পর্যন্ত পাঠদান করে ২১ জানুয়ারি ২০১৪ আমাদের কাছ থেকে না ফেরার দেশে চলে যান।